ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে সতর্ক করে দিলেন এরদোয়ান

এরদোয়ান

ভূমধ্যসাগরে তুরস্কের সঙ্গে টানাপোড়েনে গ্রিস ও সাইপ্রাসের হয়ে ইন্ধন জোগাচ্ছে ফ্রান্স। দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোকে সতর্ক করে দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান। বলেছেন, তুরস্কের সঙ্গে ‘ঝামেলা করবেন না’।

তুরস্কে ১৯৮০ সালে সামরিক ক্যু’র ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে ফ্রান্সের উদ্দেশে এরদোয়ান বলেন, “তুরস্কের জনগণের সঙ্গে ঝামেলায় জড়াবেন না। তুরস্কের সঙ্গে ঝামেলায় জড়াবেন না। ”

পূর্ব ভূমধ্যসাগরে খনিজ সম্পদ আহরণে বিস্তার বাড়ানোয় এবং নৌশক্তি বৃদ্ধি করায় গ্রিস ও সাইপ্রাসের সঙ্গে ন্যাটোভুক্ত তুরস্কের টানাপোড়েন সম্প্রতি চরমে ঠেকেছে। এই ইস্যুতে চরমভাবে আঙ্কারার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে ন্যাটোর আরেক শক্তিশালী দেশ ফ্রান্স। সম্প্রতি, ভূমধ্যসাগরে সামরিক উপস্থিতি বাড়িয়েছে প্যারিস।

বিতর্কিত জলসীমা ইস্যুতে ফ্রান্সের মতো ভুল সঙ্গীদের এড়িয়ে চলতে গ্রিসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এরদোয়ান। চলমান সংকটের প্রেক্ষাপটে তুরস্ককে নানাভাবে চাপে ফেলার চেষ্টা চালিয়ে আসছে ফ্রান্স। ভূমধ্যসাগরীয় সাতটি দেশ মিলে আঙ্কারার ওপর অবরোধ আরোপের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। এসব নিয়ে ম্যাঁক্রোর কড়া সমালোচনা করেছেন এরদোয়ান। তার ভাষায় ফ্রান্স প্রেসিডেন্টের ‘ঐতিহাসিক জ্ঞানের অভাব রয়েছে’।

অনেকটা হুমকি দিয়েই তুরস্ক প্রেসিডেন্ট বলেন, “মিস্টার ম্যাক্রোঁ আপনি আমার সঙ্গে আরও সমস্যায় জড়াতে যাচ্ছেন। ”

এরদোয়ানের বলেছেন, মানবতা দিয়ে তুরস্ককে ফ্রান্সের শেখানোর কিছু নেই। তাদেরকে প্রথমে নিজেদের ইতিহাসের দিকে তাকানো উচিত। বিশেষ করে, আলজেরিয়ায় তাদের হস্তক্ষেপ ও ১৯৯৪ সালের রুয়ান্ডা জেনোসাইডে তাদের ভূমিকায় নজর দেওয়া উচিত।

অনলাইন ডেস্ক
অনলাইন ডেস্ক
https://bangladeshdawn.com/author/202006131592032